1. amarcampus24@gmail.com : admin2020 :
শুক্রবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২০, ০৫:১৯ পূর্বাহ্ন

“মুজিববর্ষ-২০২০” কাউন্টডাউন ঘড়ির উদ্বোধন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে

আমারক্যাম্পাস ২৪ ডটকম/ঢাবি প্রতিনিধি
  • আপডেট টাইম :: শুক্রবার, ১০ জানুয়ারী, ২০২০
কাউন্ট ডাউন ঘড়ি উদ্বোধনঅনুষ্ঠানে উপাচার্য ও অতিথিবৃন্দ

বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী “মুজিববর্ষ-২০২০” এর ক্ষণগণনার কাউন্ট ডাউন ঘড়ি উদ্বোধন করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়। শুক্রবার বিকাল ৫টা ১৫ মিনিটে বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যের পাশে এ কাউন্ট ডাউন ঘড়ি উদ্বোধন করেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান।

কাউন্ট ডাউন ঘড়ি উদ্বোধনের পর প্রধান অতিথির বক্তব্যেউপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান বলেন, এই দিনটি আমাদের জন্য একটি ঐতিহাসিক দিন। এই দিনে আমাদের জাতির জনক যার হাতে গড়ে উঠেছিল একটি দেশ, আজ তাঁর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস। এই স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসটি অন্যান্য স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস থেকে বিশেষ মর্যাদা সম্পন্ন।

তিনি বলেন, সারা বাংলাদেশে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর ক্ষণগণনার সব ঘড়ি একই রকম হলেও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ঘড়িটি ভিন্ন। প্রধানমন্ত্রীর অনুমতি নিয়ে একটি বিশেষ দায়বদ্ধতা থেকে আমাদের নিজেদের ডিজাইনে ঘড়িটি তৈরি করেছি। এটি বাস্তবায়নে সহযোগিতা করার জন্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) ও ছাত্রলীগের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান তিনি।

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষকী উপলক্ষে নানা কর্মসূচীর কথা জানান তিনি। তিনি বলেন, আমরা জাতির জনককে তার জন্ম শতবর্ষ উপলক্ষে ডক্টর অব লজ ডিগ্রি প্রদান করব। মল চত্ত্বরে বঙ্গবন্ধুর একটি পূর্ণ আবয়ব ভাস্কর্য তৈরি করা হবে। তিনি আরো বলেন, আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি আমরা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ শিরোনামে একটি ডকুমেন্টারি তৈরি করবো। সেখানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ এই তিনটি বিষয় যে একই সূত্রে গাঁথা সেটি প্রদর্শিত হবে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক এ এস এম মাকসুদ কামাল বলেন, পৃথিবীতে অসংখ্য বিশ্ববিদ্যালয় রয়েছে কিন্তু কোনটি একজন জাতির পিতা সৃষ্টি করতে পারেননি। এটি সেই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় যেটি একজন জাতির পিতা সৃষ্টি করেছেন অথবা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাঙ্গনকে বেছে নিয়েছন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক নিজামুল হক ভূইয়া বলেন, আজকের এই ঐতিহাসিক দিনটি আমাদের সামনে আর আসবে না। আমরা সবাই বঙ্গবন্ধুর আদর্শে উজ্জীবিত হয়ে দেশের সেবায় কাজ করে যাব।
এছাড়াও বক্তব্য প্রদান করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক এ কে এম গোলাম রাব্বানী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের মহাসচিব রঞ্জন কর্মকার প্রমূখ।

 

ঢাকা/আমারক্যাম্পাস/আর এম

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর