1. amarcampus24@gmail.com : admin2020 :
বঙ্গবন্ধু চ্যাম্পসে অংশ নিচ্ছে ইবি: দলগঠনে নিয়ম ভঙ্গের অভিযোগ
মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর ২০২০, ০৮:৫৪ অপরাহ্ন

বঙ্গবন্ধু চ্যাম্পসে অংশ নিচ্ছে ইবি: দলগঠনে নিয়ম ভঙ্গের অভিযোগ

আমারক্যাম্পাস ২৪ ডটকম/ইবি প্রতিনিধি/আজাহার
  • আপডেট টাইম :: রবিবার, ১ মার্চ, ২০২০
ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি)

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষ্যে অনুষ্ঠিতব্য বঙ্গবন্ধু আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় চ্যাম্পিয়নশিপে অংশ নিচ্ছে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি) শিক্ষার্থীরা। ১১ ইভেন্টে বিশ্ববিদ্যালয় প্রায় ১২০ জন খেলোয়াড় অংশ নেয়ার কথা রয়েছে। এ উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ টিম ম্যানেজমেন্টের জন্য বিপুল অংকের অর্থও বরাদ্দ দিয়েছেন বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে। তবে টিম সিলেকশনে চ্যাম্পস কর্তৃপক্ষের নির্দেশনা না মানা ও ক্রীড়া দপ্তরের কর্মকর্তাদের সেচ্ছাচারিতার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

ভুক্তভোগী খেলোয়াররা অভিযোগ করে বলেন, চ্যাম্পস কর্তৃপক্ষের নির্দেশনা অনুযায়ী ১৮ সদস্যের ফুটবল দল গঠন করার কথা ছিল। কিন্তু এতে ১৬ সদস্যের দল গঠন করেছে ক্রীড়া ও শারীরিক শিক্ষা বিভাগ। তারা একই কাজ করেছেন বিশ্ববিদ্যালয় ভলিবল টিমের ক্ষেত্রেও। চ্যাম্পস কর্তৃপক্ষের নির্দেশনা হলো ১০ জনের টিম গঠন কিন্তু গঠন করেছে ১২ সদস্যের দল।

এদিকে বিশ্ববিদ্যালয় ক্রীড়া ও শারীরিক শিক্ষা বিভাগের পরিচালক ড. মোহাম্মদ সোহেল দাবি করেন নির্দেশনা মেনেই দলগঠন করা হয়েছে। তিনি বলেন- ‘আমরা নির্দেশনা মেনেই টিম গঠন করেছি। এখনো ফাইল প্রসেসিংয়ের কাজ চলছে।’

বিশ্ববিদ্যালয় ক্রীড়া দপ্তর সূত্রে জানা গেছে, এবারের প্রতিযোগিতায় ১২০ জন খেলোয়াড় অংশ নিচ্ছেন। এছাড়া টিম ম্যানেজমেন্টের জন্য আরো অন্তত ২০ জন তাদের সাথে থাকবেন। এসব ব্যবস্থাপনার জন্যে প্রায় ১১ লক্ষ টাকা বরাদ্দ দিয়েছে বিশ^বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। এছাড়া শুধু ফুটবলের জন্যই বরাদ্দ হয়েছে প্রায় আড়াই লাখ টাকা। এত বড় বাজেটের একটি ইভেন্টে নির্দেশনা অনুযায়ী দলগঠন না করায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন একাধিক খেলোয়াড়। সাগর নামের এক খেলোয়াড় জানান নির্দেশনায় স্পষ্ট তো বলাই আছে ১৮ জনের দল গঠন করতে হবে। তাহলে কেন দুজন কম নেয়া হবে? আমরা চাই সঠিকভাবে দলগঠন করা হোক।

জাকারিয়া নামের আরেক খেলোয়াড় বলেন, ”যেখানে বাজেটের কোন ঘাটতি নেই অথচ নির্দেশনা থাকা সত্তেও দুজন সদস্য বাদ দেয়া হয়েছে। আবার ভলিবলে দশজনের দলগঠনের নির্দেশনা থাকলেও ১২ জন নেয়া হচ্ছে। এটার সমাধান হওয়া দরকার।”

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বিশ^বিদ্যালয়েল ক্রীড়া বিভাগের অফিসারদের সাথে কথা বললে তারা একেক জন একেক তথ্য প্রদান করেন। তারা জানান ”বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন বাজেট কম দেয়ায় আমরা এই টিম গঠন করেছি। আবার কেউ কেউ বলেন ভালো মানের খেলোয়াড় না পাওয়ায় ১৬ জনের দল গঠন করা হয়েছে।”

তবে উপ-পরিচালক মোস্তাফিজুর রহমান বাবলা ও আসাদুর রহমান বলেন, ‘ট্র্যাডিশন হিসেবে আমরা ১৬ জনের দল গঠন করেছি। এছাড়া আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় খেলাতেও আমরা ১৬ জনের টিমই গঠন করি।’ এছাড়া ভলিবলেও নির্দেশনা মেনেই দলগঠন করা হয়েছে বলে দাবি করেন তারা।’

একেক অফিসারের একেক বক্তব্যের বিষয়ে ক্রীড়া ও শারীরিক শিক্ষা বিভাগের পরিচালক ড. মোহাম্মদ সোহেল বলেন ‘তারা না জেনেই মন্তব্য করেছেন। আমরা কর্তৃপক্ষের নির্দেশনা মেনেই সব করেছি।’

এবিষয়ে উপ-উপাচার্য ও কেন্দ্রীয় ক্রীড়া কমিটির আহবায়ক অধ্যাপক ড. শাহিনুর রহমান বলেন, ‘বিষয় আমার জানা ছিলো না। তবে এমন ঘটনা ঘটে থাকলে তা কোনভাবেই বরদাশত করা হবে না।’

আমার ক্যাম্পাস / ঢাকা / দিপু

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর